IQNA

18:49 - October 05, 2017
সংবাদ: 2603988
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের মহামান্য রাহবার আয়াতুল্লাহ উজমা সাইয়্যেদ আলী খামেনেয়ী বলেছেন, আমেরিকাসহ আরো কিছু বিদেশি শক্তি মধ্যপ্রাচ্যে ইসরাইলের মতো আরেকটি অবৈধ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তিনি আরো বলেছেন, আমেরিকা ও ইসরাইলের স্বার্থ রক্ষার লক্ষ্যেই সম্প্রতি ইরাকের কুর্দিস্তানে বিচ্ছিন্নতাকামী গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আমেরিকা আরেকটি ইসরাইল সৃষ্টি করতে চায়: সর্বোচ্চ নেতা
বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: ইরান সফররত তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের সঙ্গে এক বৈঠকে এ মন্তব্য করেন মহামান্য রাহবার। তিনি বলেন, আমেরিকাসহ পশ্চিমা সরকারগুলোকে বিশ্বাস করা যায় না এবং তারা মধ্যপ্রাচ্যে নতুন একটি ইসরাইল সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে।

আয়াতুল্লাহ উজমা সাইয়্যেদ আলী খামেনেয়ী বলেন, কুর্দিস্তানে গণভোট অনুষ্ঠান ছিল গোটা মধ্যপ্রাচ্যের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা এবং এটি এ অঞ্চলের ভবিষ্যতের জন্য হুমকি সৃষ্টি করেছে। ইরাকের প্রতিবেশী দেশগুলোতে এই গণভোটের দীর্ঘমেয়াদী প্রতিক্রিয়ার ব্যাপারেও তিনি সতর্ক করে দেন।

মহামান্য রাহবার দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন: ইরাক থেকে কুর্দিস্তানের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া ঠেকাতে ইরান ও তুরস্কের উচিত সম্ভাব্য সব পদক্ষেপ নেয়া। সেইসঙ্গে ইরাক সরকারকেও এ ব্যাপারে কঠোর সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ নিতে হবে।

তিনি সিরিয়া বিষয়ক আস্তানা বৈঠকে তেহরান-আঙ্কারা সহযোগিতায় সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, ওই সহযোগিতার কারণে সিরিয়ার পরিস্থিতি আগের তুলনায় অনেক ভালো হয়েছে। তবে দীর্ঘমেয়াদী ও বাস্তবসম্মত পরিকল্পনা গ্রহণ না করলে উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসবাদকে নির্মূল করা যাবে না বলেও তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের মহামান্য রাহবারের সঙ্গে সাক্ষাতে তেহরান ও আঙ্কারাকে নিয়ে একটি শক্তিশালী জোট গঠনের আগ্রহ প্রকাশ করেন রজব তাইয়্যেব এরদোগান। তিনি বলেন, ইরাক থেকে কুর্দিস্তানের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া ঠেকাতে তেহরান, আঙ্কারা ও বাগদাদকে সমন্বিত পদক্ষেপ নিতে হবে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, কুর্দি নেতা মাসুদ বারজানি গণভোটের আয়োজন করে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে।
iqna

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: