IQNA

16:44 - June 14, 2019
সংবাদ: 2608730
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রভাবশালী আলেম আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ আহমাদ খাতামি বলেছেন, আমেরিকার সঙ্গে আলোচনা করে ইরানের কোন লাভ হবে না এবং ইরানি জাতি অর্থনৈতিক চাপের মুখে কখনো আলোচনায় বসবে না। তিনি আজ তেহরানে জুমার নামাজের খুতবা এ কথা বলেন।

পার্সটুডের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইকনা'র রিপোর্ট: আয়াতুল্লাহ খাতামি বলেন, মার্কিন শাসকগোষ্ঠী এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প, জন বোল্টন ও মাইক পম্পেও চক্রের মধ্যে কোনো সততা ও আন্তরিকতা নেই। তারা ইরানের সঙ্গে আলোচনার জন্য আমেরিকা প্রস্তুত বলে যে দাবি করছে তা বড় মিথ্যাচার। ট্রাম্প আসলে ইরানকে আলোচনায় রাজি করাতে চাইছে আগামী নির্বাচনে ভোট পাওয়ার আশায়।

তেহরানের জুমার নামাজের খতিব আরো বলেন, ইরান পরমাণু আলোচনায় যে তিক্ত অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে তার পুনরাবৃত্তি আর করবে না। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী ও জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের মধ্যে বৈঠকের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ওই বৈঠকে দাম্ভিক ট্রাম্প অপমানিত হয়েছেন। ট্রাম্পের বার্তা গ্রহণ না করায় সর্বোচ্চ নেতার প্রশংসা করেন তিনি।

আয়াতুল্লাহ খাতামি বলেন, আমেরিকা ইরানের সরকার ব্যবস্থায় পরিবর্তন চায় না বলে ট্রাম্প যে দাবি করেছেন তা মিথ্যাচার কারণ গত ৪০ বছরে মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্টরা এ চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়েছেন।

জুমার নামাজের খতিব বলেন, ইয়েমেনে সৌদি আরব জাতিগত নির্মূল অভিযান চালাচ্ছে। যেখানেই হত্যা-লুটতরাজ সেখানেই রয়েছে সৌদি আরব। সৌদি শাসকগোষ্ঠী ইয়েমেনের অবকাঠামো ধ্বংস করে দিয়েছে। নারী ও শিশুসহ হাজার হাজার নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করেছে। তিনি বলেন, সুদানেও বিক্ষোভকারী হত্যায় সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সমর্থন ও সহযোগিতা দিচ্ছে। ইরানের এই প্রভাবশালী আলেম বলেন, সৌদি সরকার তার দেশের শিশুসহ প্রতিবাদকারীদের নৃশংসভাবে মৃত্যুদণ্ড দিচ্ছে। এসব থেকেই প্রমাণিত হয় সৌদি শাসক গোষ্ঠী হচ্ছে রক্তপিপাসু এবং অপরাধী। iqna

 

নাম:
ই-মেল:
* আপনার মন্তব্য: